নিউ ইয়র্ক আদালতে সবচেয়ে উত্তেজনাপূর্ণ দিন, সাক্ষ্য দিচ্ছেন ট্রাম্পের ‘শত্রু’

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও স্টর্মি ড্যানিয়েলস একটি কথিত যৌন কেলেঙ্কারির ঘটনায় দীর্ঘদিন ধরে বিচারের অপেক্ষায় রয়েছেন। নিজের যৌন কেলেঙ্কারি ধামাচাপা দিতে ঘুষ দেওয়ার অভিযোগে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে শুনানি চলছে নিউইয়র্কের আদালতে।

বিবিসির লাইভ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আজ আদালতে সবচেয়ে উত্তেজনাপূর্ণ দিন। এদিন আদালতে সাক্ষ্য দিতে এসেছেন ট্রাম্পের একসময়ের কাছের ও সাবেক আইনজীবী মাইকেল কোহেন। বর্তমানে তাদের দুইজনের মধ্যে সম্পর্ক তলানিতে ঠেকেছে।

বিবিসি বলছে, এই মুহূর্তে ট্রাম্প এবং কোহেন একই কোর্টরুমে অবস্থান করছেন। আদালতরুমে কোহেন সাক্ষ্য দেওয়া শুরু করেছেন। তিনি বলেছেন, আমি সরাসরি ট্রাম্পের জন্য কাজ করেছি।

এসময় তিনি উল্লেখ করেছেন, ট্রাম্পই তাকে তার এ চাকরির জন্য প্রস্তাব দেন। কোহেন বলেন, আমি ট্রাম্পের অনেক সমস্যার সমাধান করেছি। ট্রাম্পের কোনো মেইল বা মুঠোফোন ছিল না। আমি সরাসরি ট্রাম্পের সঙ্গে কথা বলতাম।

এদিন কোহেন আরও বলেছেন, আমি মাঝে মধ্যে ট্রাম্পের জন্য মিথ্যা বলেছি। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কোহেন এখনো আলাদতে সাক্ষ্য দিচ্ছেন এবং প্রসিকিউটর তাকে জেরা করছেন। প্রসিকিউটররা জানিয়েছেন, আরও দুইজন সাক্ষীকে হাজির করা হবে এবং এই সপ্তাহের মধ্যে এই মামলার নিষ্পত্তি হতে পারে।

এর আগে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ট্রাম্প ব্যবসায়িক রেকর্ড জালিয়াতির ৩৪টি অপরাধমূলক মামলার মুখোমুখি হয়েছেন। এর মধ্যে একটি ছিল, ট্রাম্পের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়ে মুখ বন্ধ রাখতে ড্যানিয়েলসকে এক লাখ ৩০ হাজার মার্কিন ডলার পরিশোধ করেন কোহেন।

কেআই

 

Facebook Comments