নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের উদ্বোধনী দিনেই মাঠে নামবে বাংলাদেশ

চলতি বছর রয়েছে মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। এবারের নারী বিশ্বকাপ ঘিরে বাংলাদেশের উন্মাদনা সবচেয়ে বেশি। কেননা এবারের আসরটি বসবে বাংলাদেশের মাটিতে। আগামী সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে হতে যাওয়া টুর্নামেন্টটির সূচি প্রকাশ করেছে আইসিসি।

রবিবার (৫ মে) দুপুরে রাজধানীর একটি হোটেলে নারীদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের নবম আসরের সূচি ঘোষণা করা হয়। একই সঙ্গে টুর্নামেন্টের ট্রফিও উন্মোচন করা হয়। সূচি ঘোষণা ও ট্রফি উন্মোচনে উপস্থিত ছিলেন ক্রীড়ামন্ত্রী ও বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এবং আইসিসির প্রধান নির্বাহী জিওফ অ্যালার্ডাইস। সঙ্গে বাংলাদেশ নারী দলের অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি ও ভারত নারী দলের অধিনায়ক হারমানপ্রীত কৌর।

এবারের আসরে ১০ দলের অংশগ্রহণে সর্বমোট ২৩টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ৩ অক্টোবর শুরু হয়ে বিশ্বকাপের ম্যাচ চলবে ২০ অক্টোবর পর্যন্ত। প্রস্তুতি ম্যাচের ভেন্যু বিকেএসপি। বিশ্বকাপের মূল ম্যাচগুলো হবে মিরপুর হোম অব ক্রিকেট, সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম ও সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামের গ্রাউন্ড ২’তে।

দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে খেলবে ১০টি দল। গ্রুপ ‘বি’ তে রয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। সঙ্গী হিসেবে পাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা, ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং ইংল্যান্ডকে। সেই সাথে থাকবে বাছাইপর্ব পেরিয়ে আসা একটি দল।

গ্রুপ ‘এ’ তে রয়েছে ছয়বারের শিরোপাজয়ী এবং বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। সঙ্গী হিসেবে থাকছে ভারত, পাকিস্তান, নিউজিল্যান্ড এবং বাছাইপর্ব পেরিয়ে আসা একটি দল।

৩ অক্টোবর উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড এবং দক্ষিণ আফ্রিকা। মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে খেলা শুরু হবে বিকাল ৩টায়। একই দিনে বাছাইপর্ব পার করে আসা দলের বিপক্ষে সন্ধ্যা ৭টায় মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

৫ অক্টোবর নিজেদের পরের ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। এরপর ৯ অক্টোবর ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং ১২ অক্টোবর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচ। সবকটি ম্যাচই মিরপুরে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ম্যাচ বিকাল ৩টায়, বাকি ম্যাচগুলো শুরু হবে সন্ধ্যা ৭টায়।

১৭ এবং ১৮ অক্টোবর আয়োজিত হবে দুই সেমিফাইনাল। ২০ অক্টোবর ফাইনাল। প্রথম সেমিফাইনাল সিলেটে, দ্বিতীয় সেমিফাইনাল আয়োজিত হবে ঢাকায়। ২০ অক্টোবরের ফাইনাল আয়োজিত হবে ঢাকায়।

Facebook Comments