বুবলীর ডায়মন্ডের নাকফুল কাণ্ডে যা বললেন শাকিব খান

বিনোদন ডেস্ক

বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকে ঢালিউড কিং শাকিব খানের সাবেক ও বর্তমান স্ত্রীর পাল্টাপাল্টি পোস্ট অব্যহত রয়েছে। যুদ্ধের শুরু হয় অপু বিশ্বাসের পোস্ট থেকে। শাকিব খান স্ত্রী বুবলীকে দিয়েছেন একটি ‘হীরার নাকফুল’। সেটা নিজের ভেরিফাইড সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেন বুবলী। সেটি নিয়েই অনেক গণমাধ্যম খবরও প্রকাশ করে।

আর সেই খবরের একটি লিংক নিজের ভেরিফাইড ফেসবুকে শেয়ার করেন শাকিব খানের আরেক স্ত্রী অপু বিশ্বাস। যেখানে ক্যাপশনে লেখেন, ‘কী যে মজা।’ এর আগে জুড়ে দিয়েছেন দশটি হাসির ইমোজি। তারপর থেকেই শুরু বিপত্তি।

অপু বিশ্বাস সংবাদের লিংকটি শেয়ার করার বিষয়ে বিস্তারিত কিছুই জানাননি। তবে সেখানে তার শুভাকাঙ্ক্ষীরা অভিনেত্রী বুবলীকে ইঙ্গিত করে নানা মন্তব্য করেন। আর অপুও যে বুবলীকে ইঙ্গিত করে পোস্টটি দিয়েছেন, সেটাও অনুমেয়।

এদিকে অপু বিশ্বাসের পোস্টের পর ছাড় দেননি বুবলী। তিনিও পাল্টা ইঙ্গিতমূলক স্ট্যাটাস দিয়েছেন। যেখানে অপু বিশ্বাসের নাম উল্লেখ না করে এক হাত নিয়েছেন।

বুধবার (২৩ নভেম্বর) ফেসবুকে ব্যক্তিগত প্রোফাইলে এক স্ট্যাটাসে লেখেন, “একজন হঠাৎ করেই বলে উঠলো ‘আরে ওই বেটি যে আপনাদের ছবিসহ নিউজ তার নিজের ফেইসবুক ওয়ালে বাঁধাই করে রাখছে, এটাই তো আপনার মজা। এতেই তো বোঝা যায় তার শয়নে-স্বপনে শুধুই আপনি, হাহাহা।”

আর এই পোস্ট শেয়ার করার পর অপু বিশ্বাস থেমে থাকেননি। আবার তিনিও করলেন পাল্টা আক্রমন। এবার অপু নিজের ফেসবুকে আবার পোস্ট করেছেন। কিন্তু বুবলীর নাম উহ্য রেখেছেন। তিনি লিখেছেন, ‘শিক্ষিত মানুষের ওয়ালে কল পাড়ের বুলি। বেটি বেটি বেটি’।

এবার এই ‘বেটি’ শব্দটির মানে অপু বিশ্বাসকে শেখালেন বুবলী। যদিও এই পোস্টেও বুবলী সরাসরি অপু বিশ্বাসকে বলেননি। তবু দুইজনের ফেসবুক পোস্টই প্রমাণ করে এটি অপুকে নিয়েই লেখা।

এবার এ বিষয়ে সংবাদ মাধ্যমে কথা বলেছেন ঢালিউড কিং শাকিব খান। তিনি জানান, ‘১টা কেন, ১০টাও পেতে পারেন। তাঁর আত্মীয়স্বজন, বন্ধু-বান্ধবেরা আছেন। তবে সবাইকে আশ্বস্ত করে একটা কথা বলতে চাই, কোনো ধরনের ডায়মন্ড নাকফুল আমি তাঁকে উপহার দিইনি।

তিনি আরও জানান, ‘সত্যি কথা বলতে, তাঁর সঙ্গে আমার কোনো ধরনের যোগাযোগ নেই। উপহার দেওয়া কিংবা উইশ করা, কোনোটাই আমার পক্ষ থেকে হয়নি। সন্তানের প্রয়োজনে সে আমাকে বা আমি তাকে লিখলেও তা শুধু শেহজাদকে কেন্দ্র করে যতটুকু দরকার, ততটুকুই হয়, এর বাইরে আর কোনো কিছুর প্রশ্নই আসে না।’

Facebook Comments