ঢাবিতে ছাত্রদল-ছাত্রলীগের সংঘর্ষ আহত আহত ৩০

ঢাবি প্রতিনিধি
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগ ও ছাত্রদল নেতাকর্মীদের মধ্যে দ্বিতীয় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে উভয়পক্ষের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (২৪ মে) সকাল সাড়ে ১১টা দিকে এ সংঘর্ষ শুরু হয়।

জানা গেছে, ২২ মে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক বিএনপি চেয়ারপার্সনকে কটুক্তির প্রতিবাদ জানিয়ে ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক সাইফ মাহমুদ প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বক্তব্য রাখেন। যার পরিপ্রেক্ষিতে ক্ষুব্ধ হয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এদিনই সন্ধ্যায় ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের টিএসসিতে হামলা করা হয়। যাতে তিনজন আহত হয়। এ ঘটনার প্রতিবাদে ছাত্রদল কর্মসূচি দেয়ার কথা জানালে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ক্যাম্পাসে মহড়া দেয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকালে সংঘর্ষের পর ছাত্রদলকর্মীরা ছাত্রভঙ্গ হয়ে যায়। আর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তখনও ক্যাম্পাসের বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান নেয়। পরে ছাত্রদল নেতাকর্মীরা লাঠিসোঠা নিয়ে আবারও একত্রিত হয়ে কার্জন হল থেকে ক্যাম্পাসের দিকে আসতে চাইলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা লাঠিসোঠা ও রড নিয়ে তাদের বাধা দেয়।

এতে দোয়েল চত্বরে আবারও উভয়পক্ষ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। পরে ছাত্রলীগের প্রতিরোধের মুখে ১২টা নাগাদ দোয়েল চত্বর এলাকা ছেড়ে চলে যান ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শহীদ মিনারের সামনে মঙ্গলবার ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের হামলায় আহত নেতকর্মীরা ঢাকা মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের ওপর হামলা চালিয়েছে ছাত্রলীগ। মঙ্গলবার (২৪ মে) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় ছাত্রলীগ ও ছাত্রদলের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি, কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু আফসান মোহাম্মদ ইয়াহিয়াসহ অন্তত ৩০ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। আহতরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসাধীন।

ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ক্যাম্পাসের মধুর ক্যান্টিনসহ গুরুত্বপূর্ণ স্পটে অবস্থান নেয়। ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আসলে তাদের ওপর হামলা করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এতে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আবু আফসার মোহাম্মদ ইয়াহিয়ার মাথা ফেটে যায়। এছাড়া কেন্দ্রীয় ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখার ১২ নেতাকর্মী আহত হয়। আহতদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হয়।

Facebook Comments