ক্রিকেট কোচ ও বিশ্লেষক জালাল আহমেদ মারা গেছেন

জাতীয় ক্রিকেট কোচ ও খ্যাতিমান ক্রিকেট লেখক জালাল আহমেদ চৌধুরী আর নেই (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজিউন)। আজ মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের (কোয়াব) সাধারণ সম্পাদক দেবব্রত পাল জালাল আহমেদ চৌধুরীর মৃত্যুর খবরটি সংবাদমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

চলতি মাসের শুরুর দিকে শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে প্রথমবার আনোয়ার খান মর্ডান হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন জালাল আহমেদ চৌধুরী। পরে চিকিৎসা নিয়ে হাসপাতাল থেকে বাসায় ফেরেন। কিন্তু স্বাস্থ্যের অবনতি ঘটায় গত ১৫ সেপ্টেম্বর আবারও হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে।

দ্বিতীয় দফায় হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর আর উন্নতি ঘটেনি তার। গত শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) থেকে রাখা হয় ভেন্টিলেশনে, এছাড়া ছিলেন আইসিইউতেও। ফুসফুসের সংক্রমণ ও শ্বাসকষ্টের সমস্যায় ভুগে শেষ পর্যন্ত চলেই গেলেন সর্বজন শ্রদ্ধেয় এই ক্রীড়াব্যক্তিত্ব।

গতকাল সোমবারও জানা গিয়েছিল, তার অবস্থার উন্নতি ঘটেনি। রক্তচাপ বেড়েছে। কিন্তু কিডনি, হার্ট আগের মতোই দুর্বল। কিডনি সেভাবে কাজ করছে না। হার্টও পাম্প করছে না তেমন।

সত্তরের দশকে জালাল আহমেদ চৌধুরী পুরোদস্তুর ক্রিকেটার ছিলেন। এরপর আশির দশকে কোচিংয়ে জড়িয়ে পড়েন। দেশের অনেক তারকা ক্রিকেটার তার হাত দিয়ে গড়া। এছাড়া ক্রিকেট নিয়ে সংবাদমাধ্যমগুলোতে নিয়মিত লেখালেখিও করতেন তিনি।

দেশের ক্রিকেট সাংবাদিকদের মধ্যে অন্যতম জালাল আহমেদ চৌধুরী। তৎকালীন বাংলাদেশ টাইমসেমর স্পোর্টস ইনচার্জ হিসেবে কাজ করেছেন।

বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী জালাল আহমেদ চৌধুরী দেশের পেশাদার ক্রীড়া সাংবাদিকদের সংগঠন বাংলাদেশ স্পোর্টস জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের (বিএসজেএ) সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বও পালন করেছেন। এছাড়া তিনি বিসিবির আম্পায়ার্স ও স্কোরার্স অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদকের পদেও অধিষ্ঠিত ছিলেন।

ঢাকার আজিমপুরে একটি ফ্ল্যাটে একাই থাকতেন তিনি। জানা গেছে, তার সন্তানরা রয়েছেন দেশের বাইরে।

Facebook Comments