মুহিবুল্লাহ বাবুনগরীই হচ্ছেন হেফাজতের আমির

কওমিপন্থীদের অরাজনৈতিক সংগঠন হেফাজতে ইসলামে বাংলাদেশের আমির জুনাইদ বাবুনগরীর মৃত্যুর পরে মুহিবুল্লাহ বাবুনগরীকে ভারপ্রাপ্ত আমির ঘোষণা করা হয়েছিল।

রোববার (২৯ আগস্ট) সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকের পর আনুষ্ঠানিকভাবে আমির হিসেবে তার নাম ঘোষণা করা হবে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত ১৯ আগস্ট হেফাজতে ইসলামের দ্বিতীয় আমির আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী চট্টগ্রামের একটি হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন। ওই রাতেই হাটহাজারী মাদরাসা মাঠে জানাজা শেষে হাটহাজারী মাদরাসার কবরস্থান ‘মাগবারায়ে জামেয়ায়’ হেফাজতের প্রতিষ্ঠাতা আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফীর কবরের পাশে জুনায়েদ বাবুনগরীকে দাফন করা হয়। দাফনের আগেই জানাজায় উপস্থিত দলীয় নেতাকর্মীদের সমর্থন নিয়ে হেফাজতের প্রধান উপদেষ্টা ও মরহুম আমির জুনাইদ বাবুনগরীর মামা মুহিবুল্লাহ বাবুনগরীকে ভারপ্রাপ্ত আমির ঘোষণা করেন মহাসচিব নুরুল ইসলাম জিহাদী।

জানা গেছে, রোববার রাজধানীর খিলগাঁও আল-জামিয়াতুল ইসলামিয়া মাখজানুল উলুম মাদরাসায় হেফাজতে ইসলামের দু’টি বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম বৈঠকটি হবে খাস কমিটির। খাস কমিটির বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন কমিটির সদস্য আল্লামা মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী, আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী, আল্লামা হাফেজ নূরুল ইসলাম, অধ্যক্ষ মিযানুর রহমান চৌধুরী, আল্লামা সাজেদুর রহমান, আল্লামা মুহিব্বুল হক গাছবাড়ী, আল্লামা আব্দুল আউয়াল ও আল্লামা মুহিউদ্দীন রব্বানী।

জানতে চাইলে কেন্দ্রীয় কমিটির প্রচার সম্পাদক মুহিউদ্দীন রব্বানী রোববার সকাল ৮টার দিকে বলেন, আজ (রোববার) দু’টি বৈঠক আছে। প্রথমটি সকাল ১০টায় হবে খাস কমিটির বৈঠক। দুপুরের পরে হবে কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠক।

বৈঠকের এজেন্ডা কি জানতে চাইলে তিনি বলেন, মুহিবুল্লাহ বাবুনগরীকে আমির ঘোষণার বিষয়টি এ বৈঠকে অনুমোদন হবে। পরে তাকে আমির ঘোষণা করা হবে। এছাড়া সংগঠনের যেসব নেতাকর্মী কারাগারে আছেন, তাদের বিষয়েও আলোচনা হবে, তবে সেটি এজেন্ডায় নেই। বিবিধের মধ্যে আছে।

Facebook Comments