কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের ৭২তম জন্মদিন আজ

জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ এর আজ শুক্রবার (১৩ নভেম্বর) ৭২তম জন্মদিন। ১৯৪৮ সালের এই দিনে নেত্রকোনায় জন্মগ্রহণ করেন হুমায়ূন আহমেদ। ঔপন্যাসিক, ছোটগল্পকার, গীতিকার, নাট্যকার, চলচ্চিত্র পরিচালক হিসেবে প্রতিটি ক্ষেত্রেই তিনি ছিলেন জনপ্রিয়তার শীর্ষে।

হুমায়ূন আহমেদ এর দুই প্রথম উপন্যাস ‘নন্দিত নরকে’ও ‘শঙ্খনীল কারাগার’। এরপর আর থেমে থাকেননি তিনি। বাংলা সাহিত্যকে সমৃদ্ধ করেছেন ‘জোছনা ও জননীর গল্প’, ‘কোথাও কেউ নেই’, ‘এইসব দিনরাত্রি’, ‘কবি’, ‘বাদশা নামদার’সহ অসংখ্য উপন্যাসে। তার সর্বশেষ ‘দেয়াল’উপন্যাসটিও পেয়েছে আকাশচুম্বী পাঠকপ্রিয়তা। আর তার সৃষ্টি ‘হিমু’, ‘মিসির আলী’, ‘শুভ্র’চরিত্রগুলো তরুণ-তরুণী থেকে শুরু করে সববয়সী পাঠকের কাছে অনুকরণীয় হয়েছে।

লেখালেখির সঙ্গে সঙ্গে হুমায়ূন আহমেদ নির্মিত চলচ্চিত্রগুলোও সবার কাছে বিশেষ সমাদৃত হয়। ‘আগুনের পরশমণি’, ‘শ্রাবণ মেঘের দিন’, ‘দুই দুয়ারী’, ‘শ্যামল ছায়া’, ও ‘ঘেটুপুত্র কমলা’চলচ্চিত্রগুলোর জন্য তিনি পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। এছাড়া তার নির্মিত বাংলা নাটকের অমর সৃষ্টি ‘কোথাও কেউ নেই’, ‘এইসব দিনরাত্রি’, ‘অয়োময়’ও ‘বহুব্রীহি’ ইত্যাদি।

হুমায়ূন আহমেদ তার দীর্ঘ চার দশকের সাহিত্যজীবনের স্বীকৃতি হিসেবে পেয়েছেন একুশে পদক, বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার, হুমায়ুন কাদির স্মৃতি পুরস্কার, লেখকশিবির পুরস্কার, মাইকেল মধুসূদন দত্ত পুরস্কার, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ও বাচসাস পুরস্কার।

যুক্তরাষ্ট্রে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২০১২ সালের ১৯ জুলাই পৃথিবীর মারা ত্যাগ করে চলে যান তিনি। বেঁচে থাকতে হুমায়ূন আহমেদের জন্মদিন ঘিরে নানা আয়োজনে মুখরিত থাকতো দখিন হাওয়া ও নূহাশপল্লী। যদিও এখনও তার পরিবার ও ভক্তরা দিনটি স্মরণ করে নানা কর্মসূচি পালন করে থাকে।

Facebook Comments